রবিবার ১৭ই আশ্বিন ১৪২৯ Sunday 2nd October 2022

রবিবার ১৭ই আশ্বিন ১৪২৯

Sunday 2nd October 2022

প্রচ্ছদ প্রতিবেদন

ফাটা ডিমেও কপাল ফাটল গরিবের

২০২২-০৮-১৪

দৃকনিউজ প্রতিবেদন

    

একদম ভেঙে যাওয়া ডিমও দ্রব্যমূল্যের উর্ধগতি থেকে রেহাই পায়নি

 

 

ফাটা ডিম ছিল গরিব মানুষের আমিষের একটা উৎস। ভালো ডিমের চাইতে অনেক কম দামে মিলতো ফার্মের মুরগির ভেঙে যাওয়া ডিম। একদম ভেঙে যাওয়া ডিমের চাইতে সামান্য কিছু বেশি দামে বিক্রি হয় ফাটা ডিম। ডিম সংগ্রহ ও বিপননের নানান পর্যায়ে ক্ষতিগ্রস্ত ডিমগুলোকে রাজধানীর নানান বাজারে  ফাটা ও ভাঙার নানান পরিস্থিতি অনুযায়ী দাম নির্ধারণ করে বিক্রি করা হয়।

 

 

ভালো ডিমের দাম ইতিমধ্যেই রেকর্ড ভেঙেছে। খুচরা বাজারে ভালো ডিমের ডজন এখন ১৬০ টাকা।  যারা একটু কম দামে  ফাটা বা ভাঙা ডিম কিনতেন, ক্ষতিগ্রস্ত ডিমের দামের বাজারেও দামের আগুন লেগে তাদের দুঃসময়কে আরও ভারী করেছে এ দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতি হাওয়া লেগে আজ ফাটা ডিমের দামও নতুন রেকর্ড স্থাপন করেছে। লালমাটিয়াতে ডিম সরবরাহ করা হারুন জানালেন এক ডজন ফাটা ডিম তিনি দোকানে বিক্রি করেছেন ১২০টাকায়,  খোসা অনেক বেশি ভাঙা ডিম ৯০টাকা।  রাজধানীর রায়েরবাজার ও আড়াইল্লা বাজারে ক্ষতিগ্রস্ত ডিম কিনতে আসা মানুষজন এ নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। "ফাটা ডিমেও গরিবের কপাল ফাটল", বাধ্য হয়েই বেশি দামে ভাঙা ডিম কিনতে কিনতে জানালেন একজন ক্রেতা। একজন নারী জানালেন সন্তানদের জন্য ডিম না কিনে উপায় নেই, তাই একদম ভাঙা ডিমের ভেতর থেকেও বেছে, মাছি আছে কি না দেখে আগুনের বাজার থেকে ভাঙা ডিম কিনছেন।