শনিবার ১৯শে অগ্রহায়ণ ১৪২৯ Saturday 3rd December 2022

শনিবার ১৯শে অগ্রহায়ণ ১৪২৯

Saturday 3rd December 2022

দেশজুড়ে প্রাণ-প্রকৃতি-পরিবেশ

শৈশবে পোষা প্রাণীসঙ্গ অ্যাজমা প্রতিরোধে সাহায্য করে!

২০২২-০৯-০৫

দৃকনিউজ প্রতিবেদন

শ্বাসকষ্ট, হাঁপানি বা অ্যাজমার প্রকোপ দুনিয়া জুড়েই বাড়ছে। নগর বাস, দূষণ বৃদ্ধির মতো কারণগুলো যে এর জন্য মূলত দায়ী, সেটা সকলেই জানেন। কিন্তু পশুপাখির সঙ্গ না পাওয়াটাও যে শিশুদের দুর্বল করে ফেলছে, সেটাও এখন বিজ্ঞানীদের কাছে পরিষ্কার। এই জ্ঞান ব্যবহার করে অ্যাজমার প্রতিষেধক তৈরিরও চেষ্টা চলছে। বিজ্ঞানীদের একটি আন্তর্জাতিক দল শিশুদের এলার্জি সংক্রমণ রোধে ‘খামারের ধুলো’ দিয়ে চিকিৎসা নিয়ে কাজ করছেন।

 

গবেষণায় দেখা গেছে যে, পারিবারিক খামারে বেড়ে ওঠা শিশুদের অ্যালার্জিক রাইনাইটিস প্রতিরোধ ব্যবস্থা অপেক্ষাকৃত শক্তিশালী থাকে। অ্যালার্জিক রাইনাইটিস হলো এমন একটি সমস্যা, যাতে সর্দি ও হাঁচি দেখা দেয় এবং চোখ লাল হয়ে যায়। 

 

বিজ্ঞানীরা এখন মনে করছেন, গরুর খামারের ধুলোয় থাকা উপাদান এবং নিয়মিত প্রক্রিয়াজাত না করা দুধ পান অ্যালার্জি প্রতিরোধে কাজে লাগতে পারে। কোনও কোনও বিজ্ঞানীর ধারণা, এসবের ভেতরে থাকা বিভিন্ন ধরনের অণুজীব শরীরের প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে সাহায্য করে।

 

 

 

বিজ্ঞানীরা এখন মনে করছেন, গরুর খামারের ধুলোয় থাকা উপাদান এবং নিয়মিত প্রক্রিয়াজাত না করা দুধ পান অ্যালার্জি প্রতিরোধে কাজে লাগতে পারে। কোনও কোনও বিজ্ঞানীর ধারণা, এসবের ভেতরে থাকা বিভিন্ন ধরনের অণুজীব শরীরের প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে সাহায্য করে 

 

 

অবশ্য কোনও কোনও লোকসংস্কৃতিতে কম প্রক্রিয়াজাত দুধকে শ্বাসকষ্টের প্রতিষেধক হিসেবে ভাবা হয়। বাংলাদেশেরই বহু অঞ্চলে বিশেষ করে ছাগলের দুধকে শ্বাসকষ্টের চিকিৎসায় পান করবার ঐতিহ্য রয়েছে।

 

গবেষকদের একটি আন্তর্জাতিক সংঘ এখন কাজ করছেন খামারের ধুলো এবং প্রক্রিয়াজাত করা হয়নি এমন দুধ থেকে অ্যালার্জির প্রতিষেধক তৈরির সম্ভাবনা নিয়ে। আশা করা হচ্ছে, এ গবেষণার ফলাফল খাদ্যঘটিত অ্যালার্জির ক্রমবর্ধমান প্রকোপ প্রতিরোধ করতে সক্ষম হবে। এ বিজ্ঞানীদের লক্ষ্য আগামী পাঁচ বছরের মধ্যে গবেষণার ফলাফল সামনে নিয়ে আসা।

 

জার্মানির মিউনিখের হেমহলজ গবেষণা কেন্দ্র এবং মিউনিখ বিশ্ববিদ্যালয়ের ডক্টর ভন হনার শিশু হাসপাতালের শিশুরোগ বিশেষজ্ঞ এরিকা ভন মিউটিয়াস জানান, আন্তর্জাতিক এই প্রকল্পের মধ্যে রয়েছে খামারের ধুলোর প্রতিরক্ষামূলক উপাদান পরীক্ষা এবং শিশুদের ওপর যৎসামান্য প্রক্রিয়াজাত দুধের উপকারী প্রভাব।

 

তিনি বলেন, “আমরা এমন এক চিকিৎসা পদ্ধতি তৈরির পথে আছি, যেটা সফল হলে শ্বাসকষ্ট এবং অ্যালার্জি প্রতিরোধ করা যাবে। গবেষণাটি খুবই সম্ভাবনাময়, আর আমরা ধীরে ধীরে সেখানে পৌঁছাচ্ছি।”

 

দ্যা গার্ডিয়ান জানিয়েছে এ সপ্তাহে অ্যালার্জি বিশেষজ্ঞদের একটি বৈশ্বিক সম্মেলনে সম্ভাব্য মারাত্মক অ্যালার্জিক প্রতিক্রিয়ার বিরুদ্ধে আন্তর্জাতিক লড়াইয়ের সর্বশেষ অগ্রগতি পরীক্ষা করা হবে।

 

এ অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করবে নাতাশা অ্যালার্জি রিসার্চ ফাউন্ডেশন, যার প্রতিষ্ঠাতা নাতাশা এডনান-ল্যাপেরাউসের বাবা-মা। নাতাশা এডনান-ল্যাপেরাউস ২০১৬ সালের জুলাই মাসে তিল আছে এমন একটি বাগেত খাওয়ার পরে অ্যালার্জিক প্রতিক্রিয়ায় মারা যান।

 

জার্নাল অফ অ্যালার্জি অ্যান্ড ক্লিনিক্যাল ইমিউনোলজি এর সর্বশেষ গবেষণায় দেখা যায়, ৬ বছর বয়সের পর খামারে নানান পশুপাখির সাথে বেড়ে ওঠা যেসব শিশুরা অন্যত্র চলে গিয়েছিল, তাদের ক্ষেত্রেও পূর্ণবয়স পর্যন্ত অ্যালার্জিক প্রতিক্রিয়ার বিরুদ্ধে প্রতিরোধ কার্যকর থাকে। জার্মানিতে প্রায় ১৩০০ এর বেশি শিশুর ওপর এ গবেষণা চালানো হয়।

 

 

গবেষণায় দেখা যায়, ৬ বছর বয়সের পর খামারে নানান পশুপাখির সাথে বেড়ে ওঠা যেসব শিশুরা অন্যত্র চলে গিয়েছিল, তাদের ক্ষেত্রেও পূর্ণবয়স পর্যন্ত অ্যালার্জিক প্রতিক্রিয়ার বিরুদ্ধে প্রতিরোধ কার্যকর থাকে। জার্মানিতে প্রায় ১৩০০ এর বেশি শিশুর ওপর এ গবেষণা চালানো হয়।

 

 

প্রতিবেদনটির সহ-লেখক ছিলেন ভন-মিউটিয়াস। তিনি বলেন: “আমাদের প্রাপ্ত ফলাফল এই ধারনার সাথে সঙ্গতিপূর্ণ যে, অণুজীব বৈচিত্র্যে ভরপুর পরিবেশের সংস্পর্শে আসার মাধ্যমে অ্যালার্জি প্রতিরোধের সম্ভাবনার জানালা খুলে যায়। আর এই সম্ভাবনা নিহিত থাকে শৈশবে।”

 

ভন মিউটিয়াস বলেন, “এত দিন পরিবেশে থাকা অ্যালার্জেন থেকে শিশুদের রক্ষা করার দিকে নজর দেওয়া হয়েছে। তিনি বলেন, “এটা এখন আর এড়িয়ে যাওয়ার বিষয় নেই। আমাদের জীবনধারা থেকে যেসব বিষয় হারিয়ে গেছে, তা চালু করার জন্য এখন আমাদের একমত হওয়া প্রয়োজন।”

 

গবেষণায় দেখা গেছে যে, জার্মানি এবং সুইজারল্যান্ডে খামারের ধুলোর সংস্পর্শে আসা ইঁদুরেরা বাড়ির ধুলো বা জীবাণুঘটিত অ্যালার্জি থেকে সম্পূর্ণ সুরক্ষিত ছিল। আরও কিছু গবেষণায় দেখা গেছে যে, প্রক্রিয়াজাত না করা অথবা কাঁচা দুধের সঙ্গে অ্যালার্জি থেকে সুরক্ষার সম্পর্ক রয়েছে। একদম কাঁচা দুধে ক্ষতিকর ব্যাক্টেরিয়া থাকতে পারে বলে গবেষণা প্রকল্পটি ফুটিয়ে নেয়া বা কম প্রক্রিয়াজাত খামারের দুধ নিয়ে কাজ করছে।

 

অলাভজনক প্রতিষ্ঠান ডাচ লাঙ ফাউন্ডেশন ইউরোপের ফুসফুস গবেষণার সবচেয়ে বড় পৃষ্ঠপোষকদের একটি। প্রতিষ্ঠানটি শ্বাসকষ্ট ও অ্যালার্জি প্রতিরোধে সম্ভাব্য চিকিৎসা পদ্ধতি খুঁজতে একটি আন্তর্জাতিক শ্বাসকষ্ট কনসোর্টিয়ামের পৃষ্ঠপোষকতা করছেন। 

 

প্রতিষ্ঠানটির লক্ষ্য হলো ২০২৭ সালের মধ্যে “যৎসামান্য প্রক্রিয়াজাত” খামারের দুধভিত্তিক একটি পণ্য প্রস্তুত করা, যা শিশুদের অ্যালার্জি এবং শ্বাসকষ্ট থেকে সুরক্ষিত রাখবে। ‘খামারের ধুলো’ ভিত্তিক আরও একটি প্রতিরোধমূলক চিকিৎসাপদ্ধতি উদ্ভাবন করতে চায় প্রতিষ্ঠানটি।

 

সাউথহ্যাম্পটন বিশ্ববিদ্যালয়ের ইমিউনোফার্মাকোলজির অধ্যাপক স্যার স্টিফেন হলগেট এ সপ্তাহের সম্মেলনটির নেতৃত্ব দিচ্ছেন। তিনি জানান, এ সম্মেলনে বিজ্ঞানীরা অ্যালার্জির প্রকোপ বৃদ্ধির ক্রমবর্ধমান প্রমাণ, এর সম্ভাব্য কারণ শনাক্ত ও এ থেকে বাঁচার তরিকা উপস্থাপন করবেন।

 

তিনি জানান, অ্যালার্জির প্রকোপ বৃদ্ধির একটি কারণ নিহিত থাকতে পারে ছোট শিশুদের বৈচিত্র্যময় অণুজীবের সংস্পর্শে আসা কমে যাওয়ার মধ্যে।

 

 

অ্যালার্জির প্রকোপ বৃদ্ধির একটি কারণ নিহিত থাকতে পারে ছোট শিশুদের বৈচিত্র্যময় অণুজীবের সংস্পর্শে আসা কমে যাওয়ার মধ্যে।

 

 

তিনি বলেন, “জীবনের প্রথম কয়েক মাসে সুরক্ষামূলক ব্যবস্থার সংস্পর্শে না আসার মধ্য দিয়ে আমরা আমাদের রোগ প্রতিরোধ ব্যবস্থাকে অ্যালার্জি প্রতিরোধ করার ক্ষেত্রে সফল হওয়ার মতো সক্ষমতা থেকে বঞ্চিত করছি।” তিনি জানান যে, সম্মেলনে শিশুদের অ্যালার্জি থেকে সুরক্ষিত রাখার চিকিৎসাপদ্ধতি সংক্রান্ত গবেষণা নিয়েও আলোচনা হবে।

 

নাতাশার বাবা নাদিম এডনান-ল্যাপেরাউস বলেন, “চার বছর আগে আমাদের কন্যার মৃত্যুর তদন্তের অল্প সময় পরে এই কক্ষেই প্রথম পৃথিবীর অগ্রবর্তী অ্যালার্জি ও পরিবেশ বিশেষজ্ঞদের একত্র করার চিন্তা করা হয়েছিল।”

 

“আমরা দৃঢ়ভাবে বিশ্বাস করি যে , বিজ্ঞানের গবেষণার মাধ্যমে আমরা অ্যালার্জির ওপর আলোকপাত করতে পারি এবং একে ইতিহাসের খাতায় ফেলে দেওয়ার জন্য কাজ করতে পারি। এ সপ্তাহের এই সম্মেলন নীতিমালা প্রণয়ন ও গবেষণা ক্ষেত্রে একটি গুরুত্বপূর্ণ মাইলফলক হতে পারে।”

 

[প্রতিবেদনটি মূলত গার্ডিয়ানে প্রকাশিত Miracle ‘farm dust’ pill could prevent childhood allergies  এর অনুবাদ। প্রাসঙ্গিক কিছু তথ্য যুক্ত করা হয়েছে।]